উপনির্বাচন: নাসিরনগরে পুলিশের নৌকায় সিল, সুন্দরগঞ্জে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা আটক ৪

উপনির্বাচন: নাসিরনগরে পুলিশের নৌকায় সিল, সুন্দরগঞ্জে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা আটক ৪

নিউ সিলেট ডেস্ক : ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করতে পুলিশ নিজেরাই নৌকা প্রতীকে সিল মারছে বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টি (জাপা) মনোনীত প্রার্থী রেজওয়ান আহমেদ। আজ মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার নূরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন তিনি। এ সময় ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার ও কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের সাথে কথা কাটাকাটি হয় জাপা প্রার্থীর।
রেজওয়ান আহমেদ বলেন, পুলিশ ও আওয়ামী লীগের ক্যাডাররা কেন্দ্র থেকে আমার এজেন্টদের বের করে দিয়ে নৌকায় সিল মারছে। আমি ডিআইজি ও রিটার্নিং কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানিয়েছি। কিন্তু কোনো কাজ হচ্ছে না।
তিনি আরও অভিযোগ করেন, চাতালপাড় ইউনিয়নের ১০টি কেন্দ্র ও গোয়ালনগর ইউনিয়নের ৪টি কেন্দ্র থেকে লাঙ্গল প্রতীকের এজেন্টদের বের করে দিয়ে পুলিশ নিজেরাই সিল মারছে নৌকায়। লাঙ্গলের বিজয় নিশ্চিত জেনে তারা এ কুকর্ম করছে।
তবে অভিযোগ অস্বীকার করে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসেন বলেন, জাপা প্রার্থীর অভিযোগ সঠিক নয়। আমি নিজে বেশ কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরেছি। তিনি কেনো এমন অভিযোগ করছেন সেটি বুঝতে পারছি না।
এর আগে সকাল ৮টা থেকে ৭৪টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। তবে কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি খুব একটা নেই।
সুন্দরগঞ্জে ভোটে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলার অভিযোগে আটক ৪
গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের উপ-নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। আজ মঙ্গলবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়নের গোপালচরণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। আটকরা হলেন- গোপালচরণ এলাকার রেজা, জিকু ও ইউনুস মাস্টার। অপরজনের নাম জানা যায়নি।
ভোট কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. ওবায়দুল হক বলেন, ভোটপ্রদান শেষে ওই চারজন ভোট কেন্দ্রে অবস্থান করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছিল। এ সময় তাদেরকে আটক করা হয়।
গাইবান্ধার জেলা প্রশাসক গৌতম চন্দ্র পাল বলেন, ভোট কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে চারজনকে আটক করা হয়েছে। এখন তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। দোষী হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এই উপ-নির্বাচনে ১০৯টি ভোট কেন্দ্রে উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ১৫টি ইউনিয়নের ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৫৫৬ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।
উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আফরুজা বারী (নৌকা), জাতীয় পার্টি (জাপা) সমর্থিত প্রার্থী ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী (লাঙ্গল), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) জিয়া জামান খান (আম) ও গণফ্রন্টের শরিফুল ইসলাম (মাছ) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর সরকারদলীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মনজুরুল ইসলাম লিটন দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হলে গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনটি শূন্য হয়। পরে ২০১৭ সালের ২২ মার্চ উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে জয়লাভ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা আহমেদ। তিনিও সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে এক মাস ঢাকায় চিকিৎসাধীন থাকার পর গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর মারা যান। ফলে আসনটি আবারও শূন্য হয়।n24/ns/-



এ সংবাদটি 53 বার পড়া হয়েছে.
Spread the love
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
    3
    Shares
  •  
    3
    Shares
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*