যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির অবসর ঘোষণা

যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির অবসর ঘোষণা

নিউ সিলেট ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অ্যান্থনি কেনেডি অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। এর মধ্য দিয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সর্বোচ্চ আদালতে রক্ষণশীল রিপাবলিকানদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করার সুযোগ পেলেন। খবর- বিবিসির।
বৃহস্পতিবার (২৮ জুন) বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানায়, রক্ষণশীলরা বিভিন্ন সময় লিবারেল ডেমোক্র্যাটদের নানা বিষয়ে কোণঠাসা করতে পেরেছে। এর মধ্যে সমকামী বিয়ে, গর্ভপাত অধিকারের মতো বিষয়গুলো রয়েছে।
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে লেখা চিঠিতে বিচারপতি কেনেডি বলেন, সর্বোচ্চ আদালতে কাজ করতে পেরে অত্যন্ত কৃতজ্ঞ।
৮১ বছর বয়সী বিচারপতি আগামী ৩১ জুলাই অবসর নিতে যাচ্ছেন বলে চিঠিতে উল্লেখ করেন। সুপ্রিম কোর্টে তিনিই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বয়স্ক বিচারপতি।
যুক্তরাষ্ট্রের মানুষের জীবনে সুপ্রিম কোর্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিতর্কিত আইন, কেন্দ্রীয় সরকার ও অঙ্গরাজ্যগুলোর মধ্যে বিবাদ ইত্যাদি বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দিয়ে থাকেন। এ ছাড়া কারো মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হবে কি না, তারও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসে আদালত থেকে।
সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সুপ্রিম কোর্ট ৫০টি অঙ্গরাজ্যে সমকামী বিয়ের অধিকার দিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার অভিবাসন-সংক্রান্ত আদেশ স্থগিত করেছেন এবং কার্বন নিঃসরণের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের যে পরিকল্পনা ছিল, তা বিলম্বিত করা হয়েছে আদালতে।
এর বাইরে চলতি সপ্তাহের শুরুতেই কয়েকটি মুসলিম দেশের ওপর ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আদালতে বহাল থাকে।
বিচারপতি রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগ্যান সুপ্রিম কোর্ট দেন। তবে তিনি রিপাবলিকান দলের পক্ষেই সব সময় মতামত দেন, তা নয়। তিনি সুপ্রিম কোর্টে সুইং ভোটার (অর্থাৎ নির্ণায়ক ভূমিকা পালন করতেন কোনো দলীয় বিবেচনা না রেখেই) হিসেবে পরিচিত।
বিচারপতি গর্ভপাত অধিকারের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টে প্রায়ই অবস্থান নিয়েছেন। তার অবসর সংবাদে এই অধিকারকর্মীরা অবৈধ গর্ভপাত বিষয়ে শঙ্কায় পড়েছেন।
বিচারপতি কেনেডি বলেছেন, পরিবারে আরো সময় দিতে তিনি অবসরে যাচ্ছেন।
সুপ্রিম কোর্ট রিপাবলিকানদের নিয়োগ দেওয়া বিচারপতিরা হলেন জন রবার্টস, স্যামুয়েল অ্যালিটো, ক্ল্যারেন্স টমাস, নিল গরসুচ, অ্যান্থনি কেনেডি।
ডেমোক্র্যাটদের নিয়োগ দেওয়া বিচারপতিরা হলেন স্টিফেন ব্রেয়ার, এলেনে কাগান, সোনিয়া সোটোমায়োর, রুথ বেডার গিন্সবার্গ।tr24/ns/-



এ সংবাদটি 50 বার পড়া হয়েছে.
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*