নিজের বিয়ে ঠেকালেন প্রার্থী কিশোরী রতনা

প্রকাশিত: ৭:৪৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৭, ২০১৭

নিজের বিয়ে ঠেকালেন প্রার্থী কিশোরী রতনা

নিউ সিলেট ডেস্ক ::: স্যার, আমি এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছি। আমার পরিবারের লোকজন জোর করে আমাকে বিয়ে দিচ্ছে। আমি বিয়ে করতে চাই না। আমি পড়তে চাই। বুধবার (২৬ এপ্রিল) বিকেলে জেলার কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ছাদেকুর রমানের কাছে মোবাইল ফোনে এসব কথা বলেছিলেন রতনা খাতুন (১৬) নামের এক কিশোরী। এরপর রাতেই ওই কিশোরীর বাড়ি গিয়ে পরিবারের সাথে কথা বলে বিয়ে বন্ধ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। রতনা কালীগঞ্জ পৌরসভার আড়পাড়া গ্রামের জাক্কু মিয়ার মেয়ে। যশোর বোর্ডের অধীনে স্থানীয় সলিমুন্নেসা পাইলট বালিকা বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ইউএনও ছাদেকুর রহমান জানান, ওইদিন বিকেলে মেয়েটি বাল্যবিবাহ বন্ধ করার জন্য তাকে ফোন করে। এরপর রাত সাড়ে ৯টার দিকে তিনি মেয়েটির বাড়িতে যান এবং পরিবারের লোকজনকে বুঝিয়ে মেয়েটির বিয়ে বন্ধ করেন।
এসময় রতনার এমন বিরোচিত ভূমিকার প্রশংসা করে ইউএনও বলেন, মেয়েটি লেখাপাড়া করতে চায়। সমাজের অন্য মেয়েরা যদি এভাবে বাল্য বিবাহের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ায় তাহলে একদিন বাংলাদেশ বাল্যবিবাহ মুক্ত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।tr24/ns/-



এ সংবাদটি 1191 বার পড়া হয়েছে.
Spread the love
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
    3
    Shares
  •  
    3
    Shares
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ শিরোনাম