সিলেট জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ
ভোট ডাকাতির পর সরকার আগুন সন্ত্রাস চালাচ্ছে: আবুল কাহের শামীম

প্রকাশিত: ১১:০৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০২০

<span style='color:#ff0000;font-size:20px;'>সিলেট জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ </span> <br/> ভোট ডাকাতির পর সরকার আগুন সন্ত্রাস চালাচ্ছে: আবুল কাহের শামীম

নিউ সিলেট রিপোর্ট : বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আবুল কাহের চৌধুরী শামীম বলেছেন, ক্ষমতাসীন সরকার ফ্যাসিস্ট কায়দায় দেশে একদলীয় বাকশালী শাসন কায়েম করতে করেছে। আওয়ামী ফ্যাসিস্ট সরকারের অধীনে দেশে নির্বাচনের কোন পরিবেশ নেই। তারপরও দেশে গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে বিএনপি বিভিন্ন উপ-নির্বাচনে অংশ গ্রহণ নিচ্ছে। সেসব উপ-নির্বাচন সমুহেও সরকার ভোট ডাকাতি অব্যাহত রেখেছে। সদ্য অনুষ্ঠিত ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের উপ নির্বাচনে বাকশালী আওয়ামীলীগ ভোট ডাকাতি করেই ক্ষান্ত হয় নাই, ঢাকার বিভিন্ন স্থানে বাসে আগুন দিয়ে পুনরায় আগুন সন্ত্রাসের রাজনীতি শুরু করেছে। সেই বাস পুড়ানোর মামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সহ ঢাকার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমুলক মামলা দায়ের করা রা হয়েছে। এর মাধ্যমে সরকার উপনির্বাচনগুলো থেকেও বিএনপিকে নির্বাচনের বাইরে রাখার নীল নকশা বাস্থবায়নের পথে এগুচ্ছে। ইতিহাস স্বাক্ষী আগুন সন্ত্রাসের সাথে আওয়ামীলীগের যোগসূত্র রয়েছে, বিএনপির নাই। এসব উপনির্বাচনের ফলাফল বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন দিতে হবে। বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা সমূহ প্রত্যাহার করতে হবে। আজ রোববার (১৫ নভেম্বর) বিকেলে সিলেট নগরীর ঐতিহাসিক রেজিষ্টারী মাঠে বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসুচীর অংশ হিসেবে সদ্য অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনে ভোট ডাকাতি, বাসে অগ্নিসংযোগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমুলক মিথ্যা মামলা দায়েরের প্রতিবাদে সিলেট জেলা বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।
সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আব্দুল আহাদ খান জামাল ও আবুল কাশেমের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপি অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা দিলোয়ার হোসেনের পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সুচীত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম ফারুক, মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক নজিবুর রহমান নজিব, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সিদ্দিকুর রহমান পাপলু, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক একেএম তারেক কালাম, জেলা মহিলা দলের সভাপতি সালেহা কবির শেপি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ও জেলা বিএনপির সাবেক যোগাযোগ সম্পাদক আরিফ ইকবাল নেহাল চেয়ারম্যান, জেলা বিএনপির সাবেক ধর্ম সম্পাদক আল মামুন খান, সাবেক প্রকাশনা সম্পাদক এডভোকে আল আসলাম মুমিন, সাবেক ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মানিক, সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, গোয়াইনঘাট উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক লুৎফুর রহমান, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর, মহানগর যুবদলের সদস্য সচিব শাহ নেওয়াজ বখত তারেক, জেলা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক জাকির হোসেন, জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মকসুদ আহমদ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন, জেলা মৎস্যজীবী দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ইসলাম উদ্দিন, মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আব্দুল হাসিব, জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মোতাকাব্বির চৌধুরী সাকি ও যুগ্ম সম্পাদক তানিমুল ইসলাম তানিম প্রমূখ।



এ সংবাদটি 95 বার পড়া হয়েছে.
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ শিরোনাম