ছাত্রী নির্যাতন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে আমরা জিরো টলারেন্সে : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত: ২:২৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০১৬

ছাত্রী নির্যাতন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে আমরা জিরো টলারেন্সে : শিক্ষামন্ত্রী

37161

নিউ সিলেট ডেস্ক :: বেড়েই চলছে ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনা। রিশাকে ছুরিকাঘাত, নিতু মন্ডলকে কুপিয়ে হত্যা আর খাদিজাকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে জখম করার ঘটনা বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। নাড়া দিয়েছে সমাজের সর্বস্তরের মানুষের বিবেককে। হুমকির মুখে নারী শিক্ষার্থী ও অভিবাবকরা। এরই ফলশ্র“তিতে ছাত্রী নির্যাতন বন্ধে কঠোর হচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ইতিমধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে বেশ কিছু নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ছাত্রী নির্যাতন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে আমরা জিরো টলারেন্সে। অন্যায়কারী কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। কোনো দলের দোহাই দিয়ে কেউ রেহাই পাবে না। ইতিমধ্যে ছাত্রী নির্যাতন বন্ধ ও তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে বেশ কিছু উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক ঘটনাগুলো নিয়ে আমরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছি। তারা আমাদেরকে সকল ধরনের সহায়তা ও সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছেন। যে সকল বখাটেরা গ্রেফতার হয়েছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) পরিচালক (প্রশাসন ও কলেজ) প্রফেসর মোহাম্মদ শামছুল হুদা বলেন, দিনদিন ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায় আমরা উদ্বিগ্ন। ইতিমধ্যে ছাত্রী নির্যাতন বন্ধে ও ছাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছি। তারই ধারাবাহিকতায় আগামী ১৮ অক্টোবর সারাদেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সকাল ১১টা থেকে ১৫ মিনিটের প্রতীকী মানববন্ধন করা হবে। এ ছাড়া ২০ অক্টোবর দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সমাবেশ করা হবে।

সমাবেশে সামাজিক আন্দোলনের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিচালনা কমিটি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি, মসজিদের ইমাম ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে সহিংসতা বিরোধী কমিটি গঠন করা হবে বলে জানান তিনি।

সমাজে যাকে ছাত্রীদের উত্যক্তকারী বলে সন্দেহ হবে কমিটির লোকজন তাকে নিয়ে এসে শুধরে দেবে এবং তার বাবা-মাকে বিষয়টি অবহিত করবে। যদি এরপরও শোধরানো না যায় তাহলে তাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হবে। কেবল তাই নয় এ ধরনের ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না হয় তার জন্য অপরাধীদের বিচার যাতে দ্রুত করা যায় সে ব্যাপারেও চিন্তা ভাবনা চলছে বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত ঢাকার উইলস লিটল ফ্লাওয়ারের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী রিশাকে গত ২৪ আগস্ট ওবায়দুল নামের এক বখাটে ছুরিকাঘাত করে। তিনদিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গত ১৮ সেপ্টেম্বর মাদারীপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রী নিতু মণ্ডলকে কুপিয়ে হত্যা করে মিলন মণ্ডল নামের এক বখাটে। গত ৩ অক্টোবর সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আহত করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলম। খাদিজা স্কয়ার হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন



এ সংবাদটি 413 বার পড়া হয়েছে.
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ শিরোনাম